হস্তমৈথুন থেকে মুক্তি

হস্তমৈথুন থেকে মুক্তি
ad

দৈনন্দিন জীবনে ছেলে কিংবা মেয়েদের হস্তমৈথুন বর্তমান সময়ের জন্য এটা অনেক স্বাভাবিক ভাবে নিচ্ছে তবে এর অনেক ক্ষতির দিক রয়েছে যেগুলো লক্ষ রাখতে হবে। হস্তমৈথন এমন এক রোগ এবং মিশা যা থেকে চাইলেই মুক্তি মেলে না এটা থেকে মুক্তি মিলবে হলে অনেক প্রয়াস করতে হবে দীর্ঘ সময় ব্যয় করতে হবে।

হস্তমৈথুন একটা সাধারণ মানুষের জন্য বড় ধরনের হুমকিস্বরূপ হয়ে থাকে এটা থেকে মুক্তি পাওয়া অনেকটা জরুরি বিশেষ করে বিবাহ বিচ্ছেদে অনেকটা ভয়ানক হতে পারে এর ফলাফল। যারা ইতিমধ্যে হস্তমৈথুনে অ্যাট্রেক্টিভ হয়ে পড়েছেন তাদের জন্য বিবাহবিচ্ছেদ অনেকটা ভয়াবহ হয়ে থাকে তাই যথা সম্ভব এটা থেকে মুক্তি মেলানোর ব্যবস্থা করুন।

হস্তমৈথুন থেকে মুক্তি মেলার প্রয়াস!

সচরাচর আমরা জানি এটা থেকে খুব সহজেই মুক্তি পাওয়া যায় না। আজকে রাতে শুয়ে চিন্তা করলাম এটাই আমার শেষ বার হস্তমৈথুন তখন হস্তমৈথুন করার পরে আবার ইচ্ছে হবে যে আমি হস্তমৈথুন করি তখন মনে হবে এটাই আমার শেষ বার এভাবে কখনো শেষবার হয় না কিন্তু প্রত্যেকবার মনে হবে যে এটাই আমার শেষ ভাবে চলতে থাকে দিনের পর দিন বছরের পর বছর একটা সময় পুরুষের লিঙ্গের রগ গুলো রয়েছে সেগুলো বাঁকা হয়ে যায় ছোট হয়ে যায় যার ফলে বিয়ের পরে সন্তান জন্ম দেয়ার কষ্টকর হয়ে যায়।

হস্তমৈথন এমন একটা জিনিস যা আপনি চাইলেও আপনাকে ছাড়তে চাইবে না এটা অনেক বেশি হার্টফুল খুব সহজেই এটা থেকে মুক্তি মিলে না। আমরা জানি এটা কোন ডাক্তারি চিকিৎসা এর কাজ হয় না কিংবা কোন ডাক্তারি চিকিৎসা নাই এটার জন্য জেল থেকে মুক্তি পেতে পারেন এটা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য কেবল মাত্র আপনার মনের বয়স এবং মনের শক্তি তৈরি করতে হবে মনের বিরুদ্ধে লড়তে হবে তাহলেই কেবলমাত্র এটা থেকে আপনি মুক্তি পেতে পারেন।

মুক্তি পাওয়ার জন্য বিশেষ কিছু কার্যাবলীঃ অনেক সময় বিভিন্ন সিচুয়েশনে ইচ্ছে হতে পারে এটা করার জন্য। যখন ইচ্ছা হবে তখনি আপনি আপনার লিঙ্গের উপরে হাত দ্বারা আসতে আঘাত করুন যাতে একটু হলেও ব্যথা অনুভব হয় এবং ব্যথা অনুভব হলে আপনার ইচ্ছে শক্তি থাকে নিমিষেই গোপন করে ফেলবে। এভাবে আঘাত করা যাবে না যাতে করে আপনার লিঙ্গের ক্ষতি হয় কিংবা লিংক এড কোশ মরে যায় তবে প্রচন্ড ব্যথা পান।

রাতে ঘুমানোর পর যদি মনে হয় হস্তমৈথুন করি তখন দ্রুত কিছু সময় বুকডাউন অথবা কষ্টের কাজে নিমগ্ন থাকুন যাতে করে আপনার নেশা নিমেষে উধাও হয়ে যায়। অনেক সময় মোবাইলে পর্নোগ্রাফি রাখার জন্য এটা হয়ে থাকে যদি আপনার এরকম মেশা থেকে থাকে সে ক্ষেত্রে মোবাইল পর্ণোগ্রাফি এগুলো রাখা বন্ধ করুন। মোবাইলে ওয়াজ গজল এগুলো রাখুন যাতে করে আপনি চাইলেও পর্নোগ্রাফি থেকে বিরত থাকতে পারেন। ইন্টারনেট ঘেটে এগুলো না দেখার জন্য পর্ণোগ্রাফি সাইট গুলো ব্রাউজার থেকে ব্লক করে রাখুন।

অনেক সময় নিজের রুমে একা থাকলে এটা হতে পারে তখন যথাসম্ভব দ্রুত রুম থেকে বেরিয়ে পড়ুন অথবা হবে আপনার সাথে কাউকে রাখুন যাতে করে আপনি চাইলেও হস্তমৈথুন করতে না পারেন। ফ্রী সময় কোন কাজের সাথে জড়িত থাকুক কিংবা ল্যাপটপ কম্পিউটারে কাজ করুন তবে মনে রাখবেন যখন একাকার মনে হবে তখন মানুষের মধ্যে চলাচল করুন অথবা হাঁটাহাঁটি কিংবা কোন কষ্টের কাজে নিয়োজিত থাকুন।

এটা এক দিনেই আপনি ছাড়তে পারবেন না আপনি একটা টাইম সিডিউল করুন প্রতি সপ্তাহে একবার করে এর পরে প্রত্যেক মাসে একবার এরপরে থেকে আপনি মুক্তি পাবেন আপনি যদি চান এখনি যে আমি আর এটা করব না তাহলে কিন্তু আমি এটা থেকে মুক্তি পাবেন না। এটা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আস্তে আস্তে করে এটাকে বয়কট করতে হবে এটা থেকে তাহলে আপনি মুক্তি পাবেন।

বিভিন্ন সময়ে মহিলা কিংব পুরুষ এই নেশায় আসক্ত হয়ে থাকেন মহিলাদের জন্য অনুরোধ কোন মাধ্যম নেই তারাও এগুলো ফলো করুন বিশেষ করে মহিলাদের জন্য হস্তমৈথুন অনেক বড় ক্ষতি স্বরূপ হয়ে থাকে। কেননা তাদের জন্য এটি খুব ভয়াবহ। আইডি থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য ইন্টারনেট কাটুন এবং সেখান থেকে অনেক বেশি মাধ্যম রয়েছে সেগুলো জানুন এবং সেগুলো কার্যকারী করুন।

এছাড়া ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে দেখতে পারেন যদি আপনার কোন কাজ হয় তাহলে হতে পারে ডাক্তারের পরামর্শ নেয়ার পাশাপাশি আমার উপরে দেওয়া যে টিপস গুলো রয়েছে সেগুলো অবশ্যই ফলো করুন ইনশাল্লাহ আপনি মুক্তি পাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *